সুন্দর ঠোঁটের জন্য সহজ ও ঘরোয়া কিছু টিপস - Shajgoj

সুন্দর ঠোঁটের জন্য সহজ ও ঘরোয়া কিছু টিপস

lip care

ঠোঁট মুখের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ঠোঁটের ত্বক শরীরের অন্যান্য অংশের ত্বক অপেক্ষা অনেক গুণ বেশি নাজুক ও কোমল হয়ে থাকে। তাই ঠোঁটকে সুন্দর রাখতে চাই এর জন্য বাড়তি কিছু যত্ন। সুস্থ, সুন্দর ও প্রাকৃতিক ভাবে ঠোঁটে গোলাপি রঙ পেতে নিয়মিত কিছু টিপস মেনে চলতে পারেন।

টিপস একঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ  নারিকেল তেল ও মধু

পদ্ধতিঃ নারিকেল তেল ও মধু একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে ঠোঁটে কিছুক্ষণ ম্যাসেজ করতে হবে। এটি ঠোঁট ফাটা কমাতে সাহায্য করে, ঠোঁটকে নরম ও কোমল করে তোলে।

টিপস দুইঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ ধনেপাতা ও লেবু
পদ্ধতিঃ ধনেপাতার রস ২ চা চামচ লেবুর রসের সাথে মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাতে হবে। কিছুক্ষণ (১৫ মিনিটের মত) অপেক্ষা করে হালকা পানির ঝাপটা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে দুই বার ব্যবহারে ঠোঁটে গোলাপি ভাব চলে আসবে।

[picture]

টিপস তিনঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ মধু, লেবুর রস, গ্লিসারিন।

পদ্ধতিঃ প্রথমে লেবুর রস করে নিতে হবে। এবার ১ চা চামচ লেবুর রস, ৪ ফোঁটা মধু ও ২ ফোঁটা গ্লিসারিন একসাথে মিশিয়ে পেস্ট বানাতে হবে। এটি প্রতিদিন ঠোঁটে লাগালে ঠোঁটের ত্বক শুকিয়ে যাওয়া ও ঠোঁট কালচে হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে।

টিপস চারঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ নারিকেল তেল।

পদ্ধতিঃ ঠোঁটের যত্নে নারিকেল তেল অত্যন্ত সহায়ক। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নারিকেল তেল দিয়ে ঠোঁটে আলতো ভাবে কিছুক্ষন ম্যাসেজ করলে এটি ঠোঁটকে অধিক কোমল করে।

টিপস পাঁচঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ মাখন।

পদ্ধতিঃ ঠোঁটের যত্নে আরেকটি কার্যকরী নাম হচ্ছে বাটার বা মাখন। এটি দিয়ে প্রতিদিন রাতে বিশেষ করে ঘুমাতে যাওয়ার আগে কিছুক্ষণ ম্যাসেজ করে নিলে ভালো উপকার পাওয়া যায়। এটি ঠোঁটকে নরম ও গোলাপি আভা জাগিয়ে তুলতে সাহায্য করে।

টিপস ছয়ঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ জলপাইয়ের তেল বা অলিভ অয়েল।

পদ্ধতিঃ অলিভ অয়েল প্রতিদিন ঠোঁটে ব্যবহারে এটি ঠোঁটের আর্দ্রতা বজায় রাখে, তাই ঠোঁট হয় অধিক কোমল।

টিপস সাতঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ নারিকেল তেল, বাদাম তেল।

পদ্ধতিঃ প্রথমে সমপরিমাণ নারিকেল তেল ও বাদাম তেল নিতে হবে। এটি একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে কৌটায় সংরক্ষণ করা যায়। প্রতিদিন এই মিশ্রণ ব্যবহারে ঠোঁটের মরা চামড়া দূর হয় ফলে ঠোঁট ভালো থাকে।

টিপস আটঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ হলুদ গুঁড়া ও বাটার (মাখন)।

পদ্ধতিঃ প্রথমে ১ চা চামচ বাটার নিয়ে এতে ১/২ চিমটি হলুদ গুঁড়া দিতে হবে। এটি ভালোভাবে মিশাতে হবে। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাবার আগে এটি ঠোঁটে লাগানো যেতে পারে।

টিপস নয়ঃ

প্রয়োজনীয় উপাদানঃ নারিকেল তেল, টমেটোর রস।

পদ্ধতিঃ ৪ ফোঁটা নারিকেল তেল এবং ৬ ফোঁটা টমেটোর রস একসাথে মিশিয়ে প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাবার আগে লাগাতে হবে। সুন্দর ঠোঁটের জন্য এটি সপ্তাহে তিন বার লাগানো যায়।

এছাড়া সুন্দর ঠোঁট পেতে সঠিক খাদ্যাভ্যাস মেনে চলুন। ঠোঁটের আর্দ্রতা বজায় রাখতে প্রচুর পরিমাণ পানি পান করুন।

লিখেছেনঃ সারাহ্‌

ছবিঃ ওয়ালপেপারবেটা.কম

 

0 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...